পর্ব ১৩ঃ এলসিডি

এলসিডিঃ LCD এর পূর্নরুপ হল Liquid crystal display. ইতোমধ্যে আমরা সেভেন সেগমেন্টের ব্যবহার দেখেছি। সেভেন সেগমেন্টের সীমাবদ্ধতা হল একটি সেভেন সেগমেন্ট দিয়ে শুধু একটি সংখ্যাই দেখানো যায়। ইংরেজি বর্নমালার খুবই  অল্পকিছু বর্ণ সাতটি সেগমেন্ট দিয়ে তৈরী করা গেলেও বেশিরভাগই তৈরী করা যায় না। এলসিডি এই সীমাবদ্ধতা থেকে মুক্ত। এলসিডিতে ইংরেজি বর্নমালার সবগুলো বর্ণ, সংখ্যা, কাস্টমাইজড ক্যারেক্টার দেখানো সম্ভব। এক বা একাধিক পূর্ন বাক্যও লিখে দেখানো সম্ভব। মাল্টিমিটারসহ যেকোনো মিটার, ক্যালকুলেটর এবং ডিসপ্লেভিত্তিক অ্যাপ্লিকেশনগুলোতে এলসিডির ব্যবহার বহুল প্রচলিত।

প্রকারভেদঃ এলসিডির রো এবং কলামের ভিত্তিতে কয়েক ধরনের হতে পারে। যেমন 16×2, 20×4, 8×2 ইত্যাদি। ‘x’ চিহ্নের বাম দিকের সংখ্যাটি এলসিডির কলাম এবং ডানদিকের সংখ্যাটি এলসিডির সারির বা রো এর  সংখ্যা নির্দেশ করে। 16×2 এলসিডির অর্থ হল উক্ত  এলসিডির ষোলটি কলাম ও দুইটি রো আছে। এই প্রতিটি কলাম এবং রো তে এলসিডি একটি করে ক্যারেক্টার ধারনে সক্ষম।

পিন পরিচিতিঃ নিচে একটি 16×2 এলসিডির পিনগুলো দেখানো হল।

১)VSS(Ground): নেগেটিভ সাপ্লাই পিন

২)VDD:পজিটিভ সাপ্লাই পিন।

৩)VE:কন্ট্রাস্ট পিন।এই পিনটি একটি ২.২ কিলোওহম রেজিস্টর দিয়ে গ্রাউন্ড করতে হবে।

৪)RS:রেজিস্টার সিলেক্ট পিন। এলসিডিতে ডাটা লেখার জন্য এই পিনকে হাই করতে হবে।

৫)R/W:ডাটা ডিরেকশন পিন। এলসিডিতে ডাটা লিখতে হলে এই পিনকে লো করতে হবে। এলসিডি থেকে ডাটা পড়তে এই পিনকে হাই করতে হবে।

৬)E:এনাবল পিন। এলসিডিতে ডাটা লেখার সময় এই পিনটি হাই থেকে লো করলে এলসিডি একটি করে ডাটা পড়বে।

৭-১৪)D0-D7:ডাটা পিন। ৪ বিট অপারেশনের ক্ষেত্রে D0-D3 গ্রাউন্ড করে শুধু D4-D7 পর্যন্ত মাইক্রোকন্ট্রোলারের চারটি পিনের সাথে কানেক্ট করতে হয়। আট বিট অপারেশনের ক্ষেত্রে আটটি ডাটা পিনই মাইক্রোকন্ট্রোলারের সাথে কানেক্ট করতে হবে।

১৫)LED+:ব্যাকলাইট অ্যানোড।এর সাথে সংযোগ দিতে হবে।

১৬)LED-:ব্যাকলাইট ক্যাথোড।গ্রাউন্ডের সাথে সংযোগ দিতে হবে।

মাইক্রো সি এর এলসিডি লাইব্রেরিঃ এলসিডির জন্য মাইক্রো সি কম্পাইলারের নিজস্ব লাইব্রেরি রয়েছে।  লাইব্রেরিটি ব্যবহার করতে হলে মাইক্রো সি ওপেন করার পর লাইব্রেরি ম্যানেজারে গিয়ে LCD সিলেক্ট করতে হবে।

এবার এক্সপেরিমেন্ট শুরু করা যাকঃ

এই এক্সপেরিমেন্টে আমরা ‘This is LCD’ লেখাটি LCD তে দেখাব।

প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি পরিমান লিংক
AVR Trainer kit 1 http://bit.ly/2tJkSBn
ATmega16/ATmega32 1 http://bit.ly/2KlL7s2

or

http://bit.ly/2Kqg6TF

 LCD Display 16X2 with Header 1 http://bit.ly/2wDHSWc

সার্কিট ডায়াগ্রামঃ নিচের ডায়াগ্রামের মতো করে এলসিডিকে মাইক্রোকন্ট্রোলারের সাথে কানেক্ট করতে হবে।

এরপর এলসিডির VE পিনে একটি ২.২ কিলোওহম রেজিস্টর সংযুক্ত করি।

এবার একটা মজার খবর বলি। আমাদের এভিআর ট্রেনার কিটের এলসিডি কানেকটরে এলসিডি এবং জিফ সকেটে মাইক্রোকন্ট্রোলার বসালে আপনা আপনিই মাইক্রোকন্ট্রোলার আর এলসিডির মধ্যে  উপরের সার্কিট কানেকশনগুলো তৈরী হয়ে যাবে! তবে কেউ ট্রেনার কিট ব্যবহার করতে না চাইলে অবশ্যই তাকে উপরের কানেকশনগুলো আলাদা-আলাদাভাবে সম্পন্ন করতে হবে।

প্রোগ্রামঃ

 মাইক্রো সিতে নিচের প্রোগ্রামটি লিখে বিল্ড করুন।

এবার মাইক্রোকন্ট্রোলারে হেক্স ফাইল লোড করে ফলাফল দেখুন।

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.