স্মার্ট তালা, নেই চাবির ঝামেলা

শফিক সাহেব আজ ছেলের ইউনিভার্সটিতে এসেছেন, সময়মত ছেলেকে টাকা পাঠাতে পারেননি, তাই তিনি নিজেই এসেছেন টিউশন ফি জমা দিতে। মেইন গেট দিয়ে প্রবেশ ঠিকই করেছেন, কিন্তু ভিতরে প্রবেশ করে অনেক্ষণ দাঁড়িয়ে আছেন, কেউ নেই একাউন্টস অফিসের সামনে, দরজাটি বন্ধ করা। হটাৎ একজন ছাত্র আসলেন এবং দরজার সাথে লাগানো মেশিনের উপর আইডি কার্ড ধরলেন,

এবং দরজাটা খুলে গেলো। তা দেখে শফিক সাহেবের চোখ ছানাবরা হয়ে গেছে। তিনি তৎক্ষণাৎ রুমে প্রবেশ করলেন এবং লক্ষ্য করলেন কিছুক্ষণ এগিয়ে আসার পর অটোমেটিক দরজাটা বন্ধ হয়ে গেলো। শফিক সাহেব এবার ছেলের টিউশন ফি জমা দিলেন এবং চা পান করলেন। এখন বের হওয়ার সময় আবার সেই বিপত্তি! দরজা ধাক্কা দিলেও খুলেনা, আবার টান দিলেও খুলেনা। এই বিষয়টা বসে থাকা এক মেয়ে লক্ষ্য করলেন, এবং সে উঠে গিয়ে শফিক সাহেব কে জিজ্ঞেস করলেন, আংকেল আপনি কি বের হবেন? শফিক সাহেব বললেন হ্যা, তখন মেয়েটি মেশিনের পুশ সুইচটা প্রেস করলেন,

সাথে সাথে দরজাটা খুলে গেলো এবং শফিক সাহেব বের হয়েই মেয়েকে জিজ্ঞেস করলেন এই মেশিনের নাম কি? তখন মেয়েটি উত্তরে বললেন, Smart Electric Glass Door Lock বা এক্সেস কন্ট্রোল।

এবার শফিক সাহেব চলে গেলেন।  সিঁড়ি দিয়ে নামতেই ছেলের সাথে দেখা হয়ে গেলো, সাথে আবার রাকিব স্যার ছিলেন। রাকিব স্যার শফিক সাহেবকে ডাকলেন। এবার তিনজন মিলে রাকিব স্যারের রুমের দিকে রওয়ানা হলেন। ঠিক তখনই একজন ছাত্র এসে বললেন, স্যার আমার RFID কার্ডটি হারিয়ে গেছে, তখন স্যার বললেন, আমার সাথে রুমে আসো। কিছুক্ষণ হাটতেই রুমের সামনে চলে আসলেন। এবার রাকিব স্যার দরজার সাথে বসানো Smart Electric Glass Door Lock এর উপর RFID কার্ড ধরলেন এবং কিছু সংখ্যাও প্রেস করলেন,

এবার দরজাটা খুলে গেলো। তারা ভিতরে প্রবেশ করেই হারিয়ে যাওয়া কার্ডের নাম্বার চেক করলেন এবং ৩টা ক্লাশ রুমের এক্সেস কন্ট্রোল থেকে আইডি কার্ডের নাম্বার মুছে দেওয়ার অনুমতি দিলে সহকারীকে। রাকিব স্যার শফিক সাহেবের সাথে ছেলের পড়াশোনা নিয়ে কথা বললেন এবং দুপুরে খেয়ে যেতে বললেন। রাকিব স্যারের বাসাটা ভার্সিটির পাশেই। রাকিব স্যারের বাসায় গিয়ে শফিক সাহেবতো রীতিমত অবাক! তার নিজের বাসার দরজাতেও Smart Electric Glass Door Lock বসানো। তিনি এবার কোন কার্ড কিংবা পাসওয়ার্ড দিলেন না। Smart Electric Glass Door Lock এর বেল বাটনে চাপ দিলেন,

আর তার স্ত্রী এসে দরজা খুলে দিলেন। রুমে প্রবেশ করার পর, শফিক সাহেবকে বেশ অন্যরকম লাগছে, এটা রাকিব স্যার লক্ষ্য করলেন। অতপর জিজ্ঞেস করলেন শফিক সাহেব আপনি কোন বিষয়ে চিন্তিত? তখন শফিক সাহেব বললেন, স্যার আমি সকাল থেকে একটা বিষয় লক্ষ্য করলাম, ইউনিভার্সিটির প্রতিটা দরজাতে Smart Electric Glass Door Lock বসানো । রাকিব স্যার বললেন, ঠিকই দেখেছেন, আসলে সময়ের সাথে সাথে প্রযুক্তি অনেকটা এগিয়ে গেছে, তারই ধারাবাহিকতায় এগিয়ে গেছে সকল অটোমেশন সিস্টেম। তেমনি একটি অটোমেশন ডিভাইস Smart Electric Glass Door Lock কিংবা এক্সেস কন্ট্রোল। এটাকে আপনি ডিজিটাল তালাও বলতে পারেন। যা গ্লাস ডোরের জন্য বেশি উপযোগী। তবে কাঠের দরজাগুলোতেও বসানো যায়। কোন প্রকার ঝামেলা ছাড়াই বসানো যায়। শুধু মাত্র আপনার দরজার দিক অনুসারে ক্রয় করতে হবে। যেমন আমাদের প্রতিটা রুম বাম দিকে হাতল বিশিষ্ট। তবে কার্ড এড করা কিংবা ডিলিট করার জন্য একটা গোপন পাসওয়ার্ড আছে, যা আমি এবং আমার সিনিয়র স্যার সংরক্ষণ করি। ফলে কার্ড ডিলিট করা এবং এড করাও গোপনীয় থাকে। আপনি সময় পেলে এই প্রোডাক্টপেজটা দেখতে পারেন, আমি তাদের থেকেই নিয়েছি। কিভাবে পাসওয়ার্ড কিংবা কার্ড ব্যবহার করবেন সব তাদের প্রোডাক্ট ব্যবহার বিধিতে (User Manual) দেওয়া আছে। আপনি পড়লেই বুঝতে পারবেন।

 

প্রোডাক্ট রিভিউ (ভিডিও) দেখতে এখানে ক্লিক করুন।

প্রোডাক্টির ব্যবহারবিধি (User Manual) পড়তে এখানে ক্লিক করুন। 

প্রোডাক্টটি ক্রয় করতে এখানে ক্লিক করুন।

 

Nur Mohammad

Engineer Techshop Bangladesh E-mail: [email protected]

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.